বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ বছর মেয়াদি এলএলবি ভর্তি 2024 আবেদন, লিখিত পরীক্ষার প্রশ্ন সমাধান দেখুন

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ বছর মেয়াদি এলএলবি (অনার্স) প্রোগ্রাম-এর শিক্ষাবর্ষ ২০২১-২০২২ (৯ম ব্যাচ) – এর ভর্তি বিজ্ঞপ্তি আজ ১১ এপ্রিল ২০২২ তারিখ সোমবার দেওয়া হয়েছে ।

আবেদনের সময় : ১১ এপ্রিল, ২০২২ থেকে ১৫ জুলাই, ২০২২ পর্যন্ত।

লিখিত পরীক্ষার তারিখ ও সময় : ২৬ আগস্ট, ২০২২ (শুক্রবার); বিকাল ৩:০০ টা থেকে ৪:০০ টা পর্যন্ত।

আসন সংখ্যা ২ সেকশন মিলে মাত্র ১২০ । ভর্তি পরীক্ষা প্রবল প্রতিযোগিতামূলক । কারণ ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে প্রতি ১৬ জনে এক জন পড়ার সুযোগ পায় । সুতরাং ভর্তি পরীক্ষার জন্য ভর্তি গাইড ও কোচিং করা অপরিহার্য । অন্যথায় প্রতিযোগিতায় পিছিয়ে থাকবেন ।

যারা ভর্তি গাইড ও অনলাইনে কোচিং করতে আগ্রহী তারা এই পেজের ইনবক্সে নাম, পূর্ণ ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর দিয়ে বুকিং করার জন্য অনুরোধ করা হলো ।

ভর্তি গাইডের মূল্য পরবর্তীতে জানিয়ে দেওয়া হবে । গাইড যথাশিগ্র প্রকাশিত হবে । কোচিং ক্লাস অনলাইনে জুম – এর মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে ।

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাসের স্থানও দিন :

বাউবির ঢাকা আঞ্চলিক কেন্দ্রে (ঢাকা ক্যাম্পাস) নিয়মিত শিক্ষার্থীদের ক্লাস রবি, সোম, মঙ্গল ও বুধবার অনুষ্ঠিত হয় এবং কর্মজীবী/চাকুরিজীবী শিক্ষার্থীদের ক্লাস প্রতি শুক্র ও শনিবার অনুষ্ঠিত হয়।
বৈশিষ্ট্যসমুহঃ
☞ মোট কোর্স সংখ্য: ৪০ টি।
☞ প্রতি কোর্স: ৩ ক্রেডিট।মোট ক্রেডিট: ১২০ টি।
☞ মোট সিমেস্টার: ৮ টি (৬ মাস মেয়াদী)
☞ রেজিস্ট্রেশনের মেয়াদ: ৮ বছর।
☞ প্রতি সেমিস্টারে কোর্স সংখ্যা: সাধারণত ৫টি।
☞ ক্লাসে উপস্থিত থাকা বাধ্যতামুলক।
☞ বাউবির ঢাকা ক্যাম্পাসে ক্লাস অনুষ্ঠিত হয়।
☞ ঢাবি, জাবি, জবি ও বাউবির শিক্ষকরা ক্লাস নেন।
☞ প্রতি সিমেস্টার শেষে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।
☞ সেশনজট মুক্ত ও ডিজিটাল ক্লাস রুম।
☞ শিক্ষাগত যোগ্যতার শর্ত পূরণ করে এমন যে কোন শিক্ষার্থী আবেদন করতে পারে।
☞ আসনের ৫% কোটা মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান, পোষ্য এবং নৃজনগোষ্ঠীর জন্যে সংরক্ষিত থাকে।

বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের যোগ্যতা :
আইন বিভাগের জন্য : যেকোনো বিভাগ হতে এস এস সি বা তার সমমান পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ৩.৫ এবং এইচএসসি অথবা এর সমমান পরীক্ষায় নূন্যতম জিপিএ ৩.৫ থাকতে হবে।

ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি :
☞ বহুনির্বাচনী(MCQ) প্রশ্নের ভিত্তিতে ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
☞ ভর্তি পরীক্ষার প্রশ্নের মানবন্টন: বাংলা -২৫, ইংরেজী -২৫ সাধারণ জ্ঞান: বাংলাদেশ- ২৫,ও আন্তর্জাতিক বিষয়াবলী- ২৫।
☞ নুন্যতম পাস মার্ক: ৪০। তবে প্রতি অংশে ৪০% নম্বর পেতে হবে।
ভর্তি পরীক্ষার প্রস্তুতি : বাংলাদেশের অন্যান্য পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের মত এখানেও প্রতিযোগীতা মূলক পরীক্ষা দিয়ে পাশ করে টিকতে হয় । এখানে দুর্নীতি বা লবিং এর কোনো ব্যবস্থা নেই এবং এরূপ পদক্ষেপ গ্রহনকারীকে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কতৃক আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
এখানে ভর্তি পরীক্ষা প্রশ্ন হয় বাংলা, ইংলিশ ও সাধারন জ্ঞানের উপর। এমসিকিউ পদ্ধতিতে প্রশ্নপত্র করা হয়।
বাংলা : এসএসসি এবং এইচএসসি এর বোর্ড বইয়ের বাংলা প্রথম পত্র ও দ্বিত্বীয় পত্র হতে প্রশ্ন আসে। অথবা আপনি চাইলে বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি গাইডের বাংলা দেখতে পারেন। সেখানে থেকেও কমন পরবে।
ইংরেজি : এখানে একই কথা যে বোর্ড বই হতে প্রশ্ন আসবে। ইংরেজির বিভিন্ন গ্রামার সম্পর্কে ভালো জ্ঞান থাকা লাগবে। যেমন : tense, parts of speech, degree, synonym / antonym, idiom -phrases, appropriate preposition, right use of verb এগুলো ভালো মত পড়তে হবে।
সাধারণ জ্ঞান ( বাংলাদেশ ) : সাধারণ জ্ঞানের ব্যাপার টা হল আপনি বাংলাদেশ সম্পর্কে কতটা জানেন? বাংলাদেশ এ কোথায় কি আছে? কোন কোন দিবস কবে পালিত হয়? কোন কোন জেলা কিসের জন্য বিখ্যাত? মুক্তিযুদ্ধে ও বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার ইতিহাস। দেশের সরকার ব্যবস্থার ইতিহাস, দেশের অর্থনীতি ইত্যাদি সম্পর্কিত হতে প্রশ্ন আসে। আসলে নাগরিক হিসেবে এগুলো জানা দরকার।
সাধারণ জ্ঞান ( বিশ্ব ) : বর্তমান বিশ্বে প্রচলিত গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা, ব্যক্তিবর্গ, খেলা সম্পর্কিত তথ্য, আলোচিত ঘটনা, আন্তর্জাতিক মানের পুরস্কার, আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থাগুলো সম্পর্কিত তথ্য ও এর সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক এগুলো নিয়ে এখানে প্রশ্ন হয় ।
ভর্তি প্রক্রিয়া :
☞ ফর্ম সংগ্রহ: অনলাইনে বাউবি ওয়েবসাইট থেকে সংগ্রহ করতে হবে।
☞ ফরম জমা : জনতা ব্যাংক, ঢাকা কলেজ শাখা, ঢাকা এর নির্ধারিত একাউন্টে ৪০০ (চারশত) টাকা জমা দিয়ে জমাদানের ব্যাংক রশিদ, পূরণকৃত ফরম এবং এসএসসি ও এইচএসসি বা সমমানের উভয় পরীক্ষার মার্কশীট ও সনদের সত্যায়িত কপি। নাগরিকত্ব সনদ/জাতীয় পরিচয়পত্রের সত্যায়িত কপি এবং সদ্যতোলা দুই কপি সত্যায়িত ছবি। ঢাকা আঞ্চলিক কেন্দ্রে জমা দিতে হবে।