মালয়েশিয়া কর্মী এজেন্সি চুডান্ত, দেখে নিন তালিকা

অবশেষে ১৮টি এজেন্সি দিয়ে শুরু হয়েছে মালয়েশিয়া কমি নিয়োগ প্রক্রিয়া। মন্ত্রণালয় নিয়োগ অনুমতি দিলে ৭ দিনেই মালয়েশিয়ায় কর্মী পাঠাবে এজেন্সিগুলো। এরইমধ্যে ৮৮২ জন কর্মীর সত্যায়িত চাহিদাপত্র মন্ত্রণালয়ে নিয়োগ অনুমতি পর্যায়ে রয়েছে। আবেদনও করেছেন কয়েকটি এজেন্সির মালিক। গত ১৩ জুলাই প্রথম ৮৮২ জন এর চাহিদা পত্র দেয়।
বোয়েসেলের মাধ্যমে ১০ হাজার কর্মী নিবে  মালায়শিয়া। আবেদন করতে চাইলে এখনে ক্লিক করুণ
এছাডাও মালয়েশিয়া কর্মী নেওয়ার জন্য নিবিন্ধন শুরু হয়েছে। ইতি মধ্যে আমি প্রবাসী এ্যাপে নিবন্ধন শুরু হয়েছে আপনি এখানে নিবন্ধন করতে পারবেন। যাহারা মালয়েশিয়া যাবেন সবাই এখানে নিবন্ধন এর জন্য আবেদন করতে হবে। আসুন দেখে নেই কিভাবে আবেদন করবে।

কর্মী মালয়েশিয়া পাঠাতে অনুমোদন পেল কোন কোন এজেন্সি

মালয়েশিয়া কর্মী পাঠাতে কোন কোন এজেন্সি এখন পর্যন্ত অনুমোদন পেয়েছে তা জানাটা দরকার। কারন কোন কোন এজেন্সি অনুমোদন পেয়েছে তার উপর নির্ভর করছে আপনি কার সাথে যোগাযোগ করবেন বা মালয়েশিয়া যেতে কোন এজেন্সির উপর নির্ভর করবেন।
এখন পর্যন্ত ২০ এজেন্সিকে সরকার অনুমোদন দিয়েছে মালয়েশিয়াতে কর্মী পাঠাতে । তাই কাউকে কাগজ দিলে বা পাসপোর্ট অথবা টাকা দিলে নিশ্চিত হয়ে নিন তার অনুমোদন আছে কিনা মালয়েশিয়াতে কর্মী পাঠানোর।

মালয়েশিয়া অনুমোদ পাওয়া এজেন্সিগুলোর আরএল নাম্বার-

আদিব এয়ার ট্রাভেলস এন্ড ট্যুরস আরএল ১০২৪
আহমেদ ইন্টারন্যাশনাল আরএল ১১৪৬
আকাশ ভ্রমন আরএল ০৩৮৪
আল-রাবেতা ইন্টারন্যাশনাল আরএল ০৩৫৪
আল-বুখারী ইন্টার্নেশনাল ০৩০১
আমিয়াল ইন্টারন্যাশনাল ১৩২৬
বিনিময় ইন্টারন্যাশনাল ০৩৫১
বিএম ট্রাভেলস ১৪২১
ব্রাদার্স ইন্টারন্যাশনাল ৫৪৯
ক্যাথারসিস ইন্টারন্যাশনাল ৫৪৯
গ্রীনল্যান্ড ওভারসিজ ০০৪০
ইম্পেরিয়াল রিসোর্স লিমিটেড১৮৭৪
নিউ এজ ইন্টারন্যাশনাল ০৭০৩
ঐচি ইন্টারন্যাশনাল ১১৪১
অরবিটাল ইন্টারন্যাশনাল ০১১৩
পাথ ফাইন্ডার ইন্টারন্যাশনাল ১২৯৮

সরকার ইন্টারন্যাশনাল ১৭১৫
শাহিন ট্রাভেলস ২১৪
স্নিগদা ওভারসিস লিমিটেড ১৫৫১
এসওএস ইন্টারন্যাশনাল সার্ভিস লিমিটেড ১৫৩০
সাউথপয়েন্ট ওভারসিস লিমিটেড ০৬২২ ইউনাইটেড ম্যানপাওয়ার কনসালটেন্সি ১২১৬
জাহরত আসেসিয়েট ২০৮৫
৫এম ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেড ১৩২৭আভিং ইন্টারন্যাশনাল ০২১৫

নতুন আরো ৫০টি এজেন্সি অনুমোদন  পেয়েছে. মালয়েশিয়া কর্মী প্রেরন ৫০ এজেন্সি নাম

মালয়েশিয়া কর্মী প্রেরন ৫০ এজেন্সি নাম

মালয়েশিয়া কর্মী প্রেরন ৫০ এজেন্সি নাম

মালয়েশিয়া কর্মী প্রেরন ৫০ এজেন্সি নাম

মেডিকেল সেন্টারের তালিকা

মালয়েশিয়া কলিং ভিসায় গেল ৫৩ কর্মী 

কোন এজেন্সি কত টাকা দিয়ে কর্মী পাঠালো মালয়েশিয়া। সোমবার ৫৩ জনের একটি দল মালয়েশিয়া গেল কলিং ভিসায় । সাড়ে চার বছর বন্ধ থাকার পর এবারই এবার কর্মী গেল মালয়েশিয়া। কর্মীরা বলছেন সরকার নির্ধারিত পয়সায় তারা মালয়েশিয়া গেছেন। ক্যাথারসিস ইন্টারনেশনাল নামে একটি এজেন্সি এবার কর্মী পাঠাচ্ছে মালয়েশিয়া।
মালয়েশিয়া কমি নিয়োগ প্রক্রিয়া।
কর্মী না যাবার জন্য মালয়েশিয়াকে দায়ি করলো বাংলাদেশ। সকল প্রক্রিয়া শেষ হবার পরও একজন কর্মীও যেতে পারেনি মালয়েশিয়া। ডাটাবেইজে নাম ওঠানো থেকে শুরু করে, মেডিকেল এমন কি টাক এবং পাসপোর্ট জমা দূতাবাসের অনুমোদন সবই হয়েছে। কিন্তু হচ্ছে না মালয়েশিয়ার ফ্লাইট। কোথায় এবং কি কারনে এই ভিসা হচ্ছে না বা ফ্লাইট হচ্ছে না তা বলেছেন মন্ত্রী। বিস্তারিত আসছে…।

দেখে নিন ১৮টি এজেন্সি তালিকা ঠিকানা সহ

মালয়েশিয়া বাংলাদেশের ১৮ এজেন্সির মাধ্যমে কর্মী নেবে। আজ প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয় পেয়েছে চিঠি। যে ১৮ এজেন্সি মাধ্যমে কর্মী নিবে মালোয়শিয়া, তার তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে। এর আগে ২৫ এজেন্সি মাধ্যমে কমি নেওয়ার কথা ছিল এবং  আরো ২৫০টি এজেন্সি নিয়োগ নিবে যা ২৫টি কোম্পানি নিয়ন্ত্রন করবে। এর মাধ্যমে ২ লাখ ৩০ হাজার লোক নিবে ।
কারা বা কোন এজেন্সি মালয়েশিয়াতে কর্মী পাঠাবে এই প্রশ্নে এতদিন আটকে ছিল মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার। হাজার কর্মী অপেক্ষায় ছিলেন কবে খুলবে বাজার। তখান দুই দেশ মিলে এজেন্সি বাছায়ের কাজটি করছিলেন। এখন মালয়েশিয়া বলছে তারা বাংলাদেশের ২৫ এজেন্সির মাধ্যমে কর্মী নেবে মালয়েশিয়া। আর বাংলাদেশ বলছে, কাদের মাধ্যমে তারা কর্মী নেবে তা ঠিক করার এখতিয়ার আছে মালয়েশিয়ার ।
এবার মালয়েশিয়ার মানব সম্পদ মন্ত্রী যখন ঢাকা সফল করলেন তখন তিনি ও বলেছিলেন. কাদের মাধ্যমে কর্মী মালয়েশিয়া যাবে তা ঠিক করবে মালয়েশিয়া নিজেই। এবার তাই হলো। এবার আশা করা যায় কর্মী যাওয়া শুরু হবে মালয়েশিয়া।
সম্ভাব্য কর্মীদের জন্য আরও ভালো অ্যাক্সেসিবিলিটি তৈরি করতে এবং নিয়োগ প্রক্রিয়ার সুশাসন নিশ্চিত করার প্রয়াসে, তার মন্ত্রণালয় বাংলাদেশের জনশক্তি মন্ত্রণালয়ের দেওয়া 1,520টি তালিকা থেকে 25টি কোম্পানিকে বেছে নিয়েছে।

 ১৮ টি এজিন্সির নামের তালিকাঃ

১. অরবিটালস ইন্টারপ্রাইজ
২. আহমেদ ইন্টারন্যাশনাল
৩. নিউ এজ ইন্টারন্যাশনাল
৪. পাথ ফাইন্ডার ইন্টারন্যাশনাল-লাইসেন্স নং-১২৯৮
৫. গ্রিন ল্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল
৬. বিনিময় ইন্টারন্যাশনাল
৭. আমিয়াল ইন্টারন্যাশনাল-লাইসেন্স নং-১৩২৬
৮. ইম্পেরিয়াল রিসোর্সের লাইসেন্স
৯. এসএম ইন্টারন্যাশনাল লি।
১০. ইরবিং ইন্টারপ্রাইজ
১১. আকাশ বর্মণ 
১২. আল বোকারি ইন্টারন্যাশনাল
১৩. সাউথ পয়েন্ট ওভারসিস লিমিটেড

মালয়েশিয়া যেতে মেডিক্যাল সেন্টারের  তালিকা দেখতে ক্লিক করুণ

মালয়েশিয়া যেতে বর্তমানে ৩৪ টি মেডিকেল সেন্টার কাজ করছে তার সত্যতা বা গ্রহনযোগ্যতা নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। ৩৪ টি সেন্টারের প্রত্যেকেই বিজ্ঞাপন দিয়ে বলেছে, তারা মালয়েশিয়া যেতে ফ্রি রেজিস্ট্রেশন এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছে। সেই পরীক্ষার গ্রহনযোগ্যতা বা তা কতটুকু কার্যকর হবে তা নিয়ে শংশয় দেখা দিয়েছে। প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী বলছেন, এই তালিকা এখনো সরকার গ্রহন করেনি। এই তালিকা অনুযায়ি মালয়েশিয়া যেতে স্বাস্থ্য পরীক্ষা বা মেডিকেল করা অবৈধ। তাই মেডিকেল কোন কোন সেন্টার করতে পারবে তা নিশ্চিত করতে কিছুটা সময় চাচ্ছে মন্ত্রণালয়।
মালয়েশিয়া যেতে মেডিকেল করতে হবে। তবে এই ৩৪টি সেন্টার হবে  না কি এখান থেকে কিছু বাদ যাবে তা এখনো বলা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন মন্ত্রনালয়। অতিসিগ্রই মালয়েশিয়া যাওয়া শুরু হবে তবে অনেকেই আগে থেকে মেডিকেল করে রাখছেন।

মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন শুরু

ইতিমধ্যে গত সোমবার মানে ১৩ জুন ২০২২ থেকে আপনার নিকটস্থ সরকারি ট্রেনিং সেন্টার বা কর্ম সংস্থানের অফিসে গিয়ে নিবন্ধন করতে পারবেন যারা মালয়েশিয়া যেতে চান। মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন করতে বিএমইটির ওয়েব সাইট www.bmet.gov.bd এই ঠিকানায় ঢুকে বিস্তারিত জানতে পারেন।
মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন করা যাবে ২০০ টাকা দিয়ে। তবে আপনি যদি বাসায় বসে নিবন্ধন করতে চান তবে আমি প্রবাসী এ্যাপে নিবন্ধন করতে পারেন। এর জন্য প্রয়োজন ৩০০ টাকা। ভিডিও কিউআরকোড দেয়া আছে এটি স্ক্যান করে আমি প্রবাসী এ্যাপে ঢুকতে পারেন । অথব মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন করতে এ্যাপে ঢুকে ফরম পুরন করেত পারেন। মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন করতে প্রয়োজন হবে বৈধ পাসপোর্ট, পাসপোর্ট সাইজের ছবি, ফোন নাম্বার, ইমেইল যদি থাকে, আর যদি দক্ষতার সনদ থাকে। মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন নতুন করে করার প্রয়োজন নেই যদি না আগে নিবন্ধন করা থাকে। কেউ যদি একবার বিদেশ গিয়ে থাকেন তবে তার আর নিবন্ধনের প্রয়োজন নেই। তবে মালয়েশিয়া যেতে নিবন্ধন করতেই হবে।

মালয়েশিয়া যেতে কত টাকা লাগবে

মালয়েশিয়ার বাজার খুললো। কিন্তু মালয়েশিয়া যেতে আসলে কত টাকা দরকার। মালয়েশিয়ার মন্ত্রী বলছেন, এমপ্লয়ার পে মডেল । মানে জিরো কষ্ট। আর আমাদের মন্ত্রী বললেন খরচ হবে আগের বারের চেয়ে কম। মানে ১লাখ ৬০হাজারের কম। তাহলে আসলে কত টাক দরকার। আর কারাই বা নিয়ে যাবে মালয়েশিয়া। কবে থেকে শুরু হবে মেডিকেল।

কবে থেকে শুরু হবে মেডিকেল।

“এটি এখন সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির উপর নির্ভর করে এবং নিয়োগের জন্য যারা অনুমোদন পেয়েছে এবং  পুলিশ ক্লিয়ারেন্স রেফারেন্স সহ একটি ভিসা পাওয়ার জন্য মেডিকেল রিপোর্ট জমা দিতে হবে।  তাই আপনি যখন ভিসা পাবেন তার আগেই আপনাকে মেডিকেল এর জন্য অনুমতি নেওয়া লাগবে।

মালয়েশিয়ার যেতে মেডিকেল এজেন্সি তালিকা

কেন খুলছেনা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার?

অনেকেই প্রশ্ন করেন কবে মেডিকেল শুরু হবে মালয়েশিয়ার জন্য। আর কেনই বা খুলছেনা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার? উত্তরটা অনেকেরই জানা । কিন্তু কেন খুলছেনা মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার সেই প্রশ্নের উত্তর জানলেও অনেকে মনে করেন যে কোন ভাবে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজারটি খুললেই হলো। এদিকে ঢাকাতে এবং মালয়েশিয়াতে এজেন্সিগুলোর মধ্যে হয়েছে দুই গ্রুপ। আর সরকারের মধ্যেও দুই গ্রুপ হয়েছে দুই দেশে।
শ্রমবাজারে কার ব্যবসা করবেন তার ভাগবাটোয়ারা নিয়ে সমস্য। মালয়েশিয়াতে আগের বারের সিন্ডিকেটের হোতা নূর আলী এবার বাদ পড়েছেন সিন্ডিকেট থেকে। তাই তার অবস্থান সিন্ডিকেট বিরোধী। মিটিং মিছিল করছেন যেন সকল এজেন্সি বাজারটিতে ব্যবসা করার সুযোগ পায়। অপরদিকে যারা এবার মালয়েশিয়ার বাজারে সিন্ডিকেট করেছেন তারা বলছেন মালয়েশিয়া সিন্ডিকেট চায়।নির্দিষ্ট এজেন্সি ছাড়া কর্মী নেবে বাংলাদেশ থেকে।