৪০তম বিসিএস নিয়োগ পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ উত্তীর্ণ ১৯৬৩ জন

৪০ তম বিসিএস ক্যাডারের গেজেট প্রকাশ। Download PDF

বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসের বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগের প্রজ্ঞাপন

ব্যাচ:৪০তম
স্মারক নম্বর:০৫.০০.০০০০.১৪৭.১১.০০৮.২২-২৫৩
তারিখ:০১-১১-২০২২
ফাইল:
pdf

৪০তম বিসিএসের মাধ্যমে সরকার বিভিন্ন ক্যাডারে ১ হাজার ৯৬৩ জন প্রার্থীকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ৮০০ জনকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে শিক্ষা ক্যাডারে। প্রশাসন ক্যাডারে নিয়োগ পাবেন ২০০ জন, পুলিশের এএসপি পদে ৭২ জন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ২৫ জন, কর ক্যাডারে ২৪ জন, শুল্ক আবগারিতে ৩২ জন। এগুলোর বাইরেও রয়েছে সাড়ে সাতশ পদ।

৪০ তম বিসিএস পরীক্ষা ২০১৮ বিভিন্ন ক্যাডার পদে মোট ২২১৯ শূন্য পদের বিপরীতে ১৯৬৩ পদে নিয়োগের জন্য বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন কর্তৃক নিম্নবর্ণিত রেজিস্ট্রেশন নম্বর ধারায় যোগ্য প্রার্থীদের মেধাক্রম অনুযায়ী সাময়িকভাবে সুপারিশ করে ফল প্রকাশ করেছে সরকারি কর্ম কমিশন (পিএসসি)। বুধবার পিএসসি এই ফল প্রকাশ করে। ফলাফলে জানানো হয়, কারিগরি বা পেশাগত ক্যাডারে যোগ্য প্রার্থী না পাওয়ায় ২৬৫ পদে নিয়োগের সুপারিশ করা যায়নি।

৪০তম বিসিএস ফলাফল দেখতে ক্লিক করুণ

ক সাধারণ ক্যাডার সমূহ ক্যাডারের পদ 

১।বিসিএস প্রশাসন-২৪৫ জন

বিসিএস আনসার -১২ জন

বিসিএস নিরীক্ষা ও হিসাব-৪৫জন

বিসিএস সমবায়-১৭জন

খ। বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মুক্তিকা সম্পদ উন্নয়ন ইনস্টিটিউট

গ। বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সরকারি সাধারণ কলেজ সমূহের জন্য

ঘ। বিসিএস সাধারণ শিক্ষা সরকারি শিক্ষক প্রশিক্ষক  কলেজ সমূহের জন্য

 

ফলাফল কমিশনের (www.bpsc.gov.bd) এবং টেলিটেকর (bpsc.teletalk.com.bd) ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। এছাড়া টেলিটক বাংলাদেশ লিমিটেড থেকে এসএমএ এর মাধ্যমে ফল পাওয়া যাবে। ফল পেতে PSC40 রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার সেন্ড করতে হবে ১৬২২২ নম্বরে। ফিরতি ম্যাসেজে ফলাফল পাওয়া যাবে।

৪০তম বিসিএস নিয়োগ ফলাফল ২০২২

BPSC অনুযায়ী, ৪০ BCS-এর জন্য প্রায় 475,000 আবেদনকারী আবেদন করছেন। প্রিলি পরীক্ষার পর, প্রায় 2,135 প্রার্থী ৪০ বিসিএস লিখিত পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত হয়। লিখিত পরীক্ষার ফলাফল আজ ২৯ মার্চ প্রকাশিত হয়। বিসিএস লিখিত ফলাফল ২০২২ পরীক্ষা করার জন্য একটি বাস্তব নির্দেশনা দেওয়ার চেষ্টা করব।

৪০তম বিসিএসের ভাইবা পরীক্ষার ফল ঘোষণা করা হয়েছে। দেখত ক্লিক করুন

২. উল্লেখিত সুপারিশ প্রদানের ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত বিষয়সমূহ বিবেচনা করা হবে.
ক. নন-ক্যাডার পদে নিয়োগ বিধিমালা 2010 এর সংশোধিত 2014 এর বিধান অনুযায়ী এই সুপারিশ করা হয়েছে।
খ.সুপারিশ ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং সংশ্লিষ্ট পদের নিয়োগ বিধি অনুসরণ করা হয়েছে।
গ. প্রতিটি পদের ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের পরিপত্র বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের প্রাপ্তির তারিখের অনুসরণ করা হয়েছে।
৩. প্রার্থীদের আবেদনপত্রের সাথে প্রদত্ত তথ্য ডকুমেন্টস ইত্যাদি এবং আবেদনপত্র প্রাপ্তির প্রদত্ত অঙ্গীকারনামা বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশনের সুপারিশ করা হলো যে নিয়োগের বিনিয়োগকারী কর্তৃক সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে স্বাস্থ্য পরীক্ষার শিক্ষাগত যোগ্যতার সনদ অনলাইনে সত্যতা যাচাই এবং সুখী জীবন বৃত্তান্ত যথাযথ কর্তৃপক্ষের নিয়োগ করা হবে.
৪. পরবর্তীতে যেকোনো সময় সাময়িকভাবে সুপারিশকৃত কোন প্রার্থীর যোগ্যতা থাকলে দুর্নীতি জালিয়াতি অসত্য তথ্য প্রদান এবং অন্য কোনো ক্ষেত্রে যেমন কাগজপত্রাদি যথাযথ না থাকলে কোনো গুরুতর ভুলত্রুটি প্রমাণিত হলে প্রার্থীকে চাকরি হতে বরখাস্ত করা ছাড়াও প্রার্থীর বিরুদ্ধে উপযুক্ত আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে
৫. প্রকাশিত ফলাফলে ভুল ত্রুটি পরিলক্ষিত হলে তা সংশোধনের ক্ষমতা বাংলাদেশ কর্ম কমিশনের সংরক্ষণ করে.
৬. উল্লেখিত সুপারিশকৃত প্রার্থীদের অনলাইনে আবেদনের ডাউনলোড কপি আগামী 2022 তারিখের মধ্যে নিম্নবর্ণিত নির্দেশনা অনুসরণ করে মেইল পাঠাতে হবে
ক. ইমেইলে সাবজেক্ট এর অংশে প্রার্থীর রেজিস্ট্রেশন নম্বর উল্লেখ করতে হবে
খ.লিংক শেয়ার না করে ডাউনলোডের পিডিএফ ফাইলটি সংযুক্ত করে পাঠাতে হবে
গ. নির্ধারিত তারিখের মধ্যে আবেদনপত্র প্রার্থিতা বাতিল হবে